সেবা খাতে রেমিট্যান্স-২০ হাজার ডলার পর্যন্ত ঘোষণা লাগবে না

সেবা খাতে রেমিট্যান্স-২০ হাজার ডলার পর্যন্ত ঘোষণা লাগবে না

সেবা খাতের ২০ হাজার ডলার সমপরিমাণ পর্যন্ত আয় দেশে আনতে ঘোষণা লাগবে না। এতদিন ঘোষণা ছাড়াই ১০ হাজার ডলার পর্যন্ত আনা যেত। দেশে বসে সফটওয়্যার, ওয়েব ডেভেলপমেন্টসহ বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিংয়ের আয় আনা সহজ করতে এমন নির্দেশনা দিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। গতকাল এ সংক্রান্ত নির্দেশনা বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেনকারী (এডি) ব্যাংকগুলোতে পাঠানো হয়।

সংশ্নিষ্টরা জানান, বিদেশে কর্মরত প্রবাসীরা কোনো ঘোষণা ছাড়াই যে কোনো পরিমাণের অর্থ দেশে পাঠাতে পারেন। তবে বাংলাদেশে বসে যাঁরা বিদেশে কাজ করেন, তাদের অর্থ আনতে ঘোষণার প্রয়োজন হয়। বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেনকারী ব্যাংকের মাধ্যমে অনলাইনে ‘সি-ফরম’-এ আয় কোথা থেকে আসছে, পরিমাণ, কাজের ধরনসহ অনেক ক্ষেত্রে প্রমাণসহ তথ্য দিতে হয়। এ ক্ষেত্রে ২০ হাজার ডলার পর্যন্ত ঘোষণা লাগবে না। এ সুবিধার ফলে সেবা রপ্তানির অর্থ নগদায়ন সহজ হবে।

ডলার সংকটের কারণে বৈদেশিক মুদ্রা আয় বাড়াতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিচ্ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এর আগে এক নির্দেশনার মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে প্রত্যন্ত অঞ্চলের ফ্রিল্যান্সারদের জন্যও রপ্তানি রিটেনশন কোটা (ইআরকিউ) হিসাব খোলার নির্দেশ দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। এমএফএসের মাধ্যমে আয় দেশে আনা কিংবা বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেনকারী শাখা নেই এমন এলাকার ফ্রিল্যান্সারদের জন্য নিকটতম এডি শাখা, সেন্ট্রাল ট্রেড প্রসেসিং সেন্টার কিংবা প্রধান কার্যালয়ের সহায়তায় অন্য উপায়ে ‘ইআরকিউ’ হিসাব খুলতে বলা হয়। একই সঙ্গে এসব হিসাবের বিপরীতে আন্তর্জাতিক ডেবিট, ক্রেডিট বা প্রিপেইড কার্ড ইস্যুরও নির্দেশ দেওয়া হয়।

এক সময় সেবা রপ্তানির আয় ব্যাংকিং চ্যানেলে দেশে আনতে নানা সমস্যায় পড়তেন ফ্রিল্যান্সাররা। যে কারণে এ ধরনের আয়ের বেশিরভাগই আনতে হতো হুন্ডি করে। সেবা রপ্তানির আয় সহজে দেশে আনার সুযোগ দিতে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বিভিন্ন নীতি সহায়তা দিয়ে আসছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

Leave a Reply