বিআইবিএম ও ফ্রাংকফুর্ট স্কুল অব ফাইন্যান্সের তত্ত্বাবধানে আন্তর্জাতিক সার্টিফিকেশন কোর্স

বিআইবিএম ও ফ্রাংকফুর্ট স্কুল অব ফাইন্যান্সের তত্ত্বাবধানে আন্তর্জাতিক সার্টিফিকেশন কোর্স

জার্মানির ফ্রাংকফুর্ট স্কুল অব ফাইন্যান্স অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট ও বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্টের (বিআইবিএম) যৌথ উদ্যোগে দেশে এবারই প্রথম শুরু হচ্ছে ‘সার্টিফায়েড এক্সপার্ট অন সাসটেইনেবল ফাইন্যান্স’ শীর্ষক একটি নতুন কোর্স।

ব্যাংকার ও অন্যান্য অংশীজনদের টেকসই অর্থায়ন (সাসটেইনেবল ফাইন্যান্স) সম্পর্কিত বিষয়ে দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে আর্থিক খাতের সক্ষমতা বাড়িয়ে দেশের টেকসই উন্নয়ন ত্বরাণ্বিত করতে এ কোর্স চালু করা হয়েছে।

কোর্সটির অর্থায়নে করেছে জিআইজেড বাংলাদেশ ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি) কর্তৃক বাস্তবায়িত দ্বিপাক্ষিক প্রকল্প ‘ইমপ্রুভড কোঅর্ডিনেশন অব ইন্টারন্যাশনাল ক্লাইমেট ফাইন্যান্স’ (আইসিআইসিএফ)।  টেকসই অর্থায়নে আর্থিক খাতের সক্ষমতা বৃদ্ধি ও বেসরকারি খাতকে জলবায়ু বিনিয়োগে উৎসাহী করে গরে তোলার মাধ্যমে ব্যাংক খাতে টেকসই অর্থায়ন নীতিমালা বাস্তবায়ন করতে বাংলাদেশ ব্যাংককে সার্বিক সহযোগিতা করছে আইসিআইসিএফ প্রকল্পটি।

এ উপলক্ষে রাজধানীর বিআইবিএম মিলনায়তনে সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব জনাব শরিফা খান। এছাড়া, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে অবস্থিত জার্মান দূতাবাসের হেড অব ডেভেলপমেন্ট কোঅপারেশন ফ্লোরিয়ান হোলেন এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর ও বিআইবিএমের নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান আহমেদ জামাল।

বিআইবিএমের অধ্যাপক ড. শাহ মো. আহসান হাবীবের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জিআইজেড বাংলাদেশের আইসিআইসিএফ প্রকল্পের প্রজেক্ট ম্যানেজার ড. ফেরদৌস আরা হোসাইন, বিআইবিএমের মহাপরিচালক ড. মো. আখতারুজ্জামান সহ বাংলাদেশ ব্যাংক, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি), বিভিন্ন ব্যাংক ও এনবিএফআই (নন-ব্যাংক ফাইন্যান্সিয়াল ইনস্টিটিউট) এবং জিআইজেডের কর্মকর্তাবৃন্দ।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব শরিফা খান বলেন, “জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলা করতে প্রয়োজনীয় জলবায়ু অর্থায়ন (ক্লাইমেট ফাইন্যান্স) এবং এক্ষেত্রে সরকারি ও বেসরকারি খাতের বিনিয়োগের মধ্যে অনেক পার্থক্য আছে।” তিনি উল্লেখ করেন, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলা করতে সরকার নিজস্ব উৎস থেকে অর্থায়ন করে যাচ্ছে। এ সময় তিনি আর্থিক খাতকে টেকসই বিনিয়োগে উৎসাহী করে তুলতে বাংলাদেশ ব্যাংকের ভূমিকার প্রশংসা করেন। পাশাপাশি, বেসরকারি খাতের বিনিয়োগের উপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি। সচিব এ সময় জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বিনিয়োগ ঝুঁকিগুলো চিহ্নিত করতে আর্থিক খাতের অংশীজনদের জন্য প্রশিক্ষণ, উপকরণ টুল ও পদ্ধতির প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। টেকসই অর্থায়নের ওপর আন্তর্জাতিক পর্যায়ের এই সার্টিফিকেশন কোর্সটি জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় ও টেকসই বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ব্যাংকগুলোর জন্য সহায়ক হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এ সময় বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর, আহমেদ জামাল টেকসই বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়াতে এবং ব্যাংকার ও বেসরকারি খাতকে টেকসই বিনিয়োগ সংক্রান্ত কৌশল বাস্তবায়নে বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে পূর্ণ সহায়তার আশ্বাস দেন।

ঢাকায় অবস্থিত জার্মান দূতাবাসের হেড অব ডেভেলপমেন্ট কোঅপারেশন ফ্লোরিয়ান হোলেন অর্থনীতি এবং বিনিয়োগ বিষয়ে ইউরোপের অন্যতম শীর্ষ-স্থানীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ফ্রাংকফুর্ট স্কুল ও বাংলাদেশের ব্যাংকারদের জন্য শীর্ষস্থানীয় উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিআইবিএমের যৌথ উদ্যোগে আন্তর্জাতিক এই কোর্সটি সফল করতে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ ও জিআইজেডের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

সার্টিফায়েড এক্সপার্ট ইন সাসটেইনেবল ফাইন্যান্স (সিইএসএফ-বিএফ) জার্মানির ফ্রাংকফুর্ট স্কুল অব ফাইন্যান্স ও বিআইবিএম যৌথ সার্টিফিকেশন প্রোগ্রাম। কোর্সটিকে দুইটি মডিউলে সাজানো হয়েছে- ফ্রাংকফুর্ট স্কুলের সাথে ছয় মাসের অনলাইন মডিউল এবং বিআইবিএম ক্যাম্পাসে তিন মাসের ক্লাসরুম মডিউল। প্রথম পাইলট ব্যাচের জন্য ২৫ জন ব্যাংকার ও অংশীজনদের বাছাই করা হয়েছে এবং আইসিআইসিএফ প্রকল্পের অধীনে প্রথম ব্যাচের অ্যাকাডেমিক খরচ বহন করা হবে।

Leave a Reply