কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ ব্যবস্থাপনা তদারকির দায়িত্বে রদবদল

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ ব্যবস্থাপনা তদারকির দায়িত্বে রদবদল

নিজস্ব প্রতিবেদক: কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ৫০টি বিভাগের চারজন ডেপুটি গভর্নরের দায়িত্ব পুনর্বণ্টন করা হয়েছে। দীর্ঘ দিন ধরে বৈদেশিক রিজার্ভ ব্যবস্থাপনা বিভাগের দায়িত্বে ছিলেন ডেপুটি গভর্নর কাজী ছাইদুর রহমান। তাকে ওই বিভাগের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। ফরেক্স রিজার্ভ অ্যান্ড ট্রেজারি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের দায়িত্ব পেয়েছেন ডেপুটি গভর্নর আবু ফরাহ মো. নাছের। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার এ রদবদল এনেছেন। তবে এসব রদবদল কেন করা হয়েছে, এ সম্পর্কে কোনো ব্যাখ্যা দেয়া হয়নি।

জানা যায়, দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে বিভিন্ন পদে রিজার্ভ ব্যবস্থাপনা বিভাগের সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি গভর্নর কাজী ছাইদুর রহমান। ফলে ডলারের দাম নির্ধারণ, রিজার্ভ ব্যবস্থাপনা, ডলার বিক্রিসহ নানা ক্ষেত্রে তার কর্তৃত্ব তৈরি হয়েছিল। ডলার-সংকটে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নিয়ে নানা সময়ে প্রশ্ন উঠেছে। এমন প্রেক্ষাপটে এ পদক্ষেপ নিয়েছেন গভর্নর।

ডেপুটি গভর্নর কাজী ছাইদুর রহমান একই সঙ্গে ব্যাংক পরিদর্শন-৪ ও ব্যাংক পরিদর্শন-৭ বিভাগের তদারকির দায়িত্বে ছিলেন। তাকে সেই দায়িত্ব থেকেও সরিয়ে দেয়া হয়েছে। এ দায়িত্বও পেয়েছেন ডেপুটি গভর্নর আবু ফরাহ মো. নাছের।

জানা গেছে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ৫০টি বিভাগের তদারকির দায়িত্বে রয়েছেন চারজন ডেপুটি গভর্নর। নতুন আদেশের ফলে ডেপুটি গভর্নর কাজী ছাইদুর রহমানের অধীনে থাকছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মানবসম্পদ বিভাগ, ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টিগ্রেটি অ্যান্ড কাস্টমার সার্ভিসেস, ডেট ম্যানেজমেন্ট, আইনসহ ১৪টি বিভাগ। রদবদলের মাধ্যমে তাকে মূলত বৈদেশিক মুদ্রা ব্যবস্থাপনা, ব্যাংক তদারকি ও নীতি প্রণয়নের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হলো।

আর আবু ফরাহ মো. নাছেরকে আরও বেশি দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ, এসএমই বিভাগের পাশাপাশি বৈদেশিক রিজার্ভ ব্যবস্থাপনা ও ব্যাংক পরিদর্শনে তাকে যুক্ত করা হয়েছে। অপর দুই ডেপুটি গভর্নর আহমেদ জামাল ও এ কে এম সাজেদুর রহমান খানের দায়িত্বে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি।

বর্তমানে ডেপুটি গভর্নর আহমেদ জামালের দায়িত্বে রয়েছে ১৩টি, কাজী ছাইদুর রহমানের দায়িত্বে ১৪টি, এ কে এম সাজেদুর রহমান খানের দায়িত্বে ১২টি ও আবু ফরাহ মো. নাসেরের অধীনে ১১টি বিভাগ।

Leave a Reply