লভ্যাংশের উপর উৎসে কর প্রত্যাহার চেয়েছে সিএসই

লভ্যাংশের উপর উৎসে কর প্রত্যাহার চেয়েছে সিএসই

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি প্রদত্ত লভ্যাংশের উপর থেকে উৎসে কর প্রত্যাহার চেয়েছে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ পিএলসি। একইসঙ্গে করমুক্ত লভ্যাংশ আয়ের সীমা ৫০ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ১ লাখ টাকায় উন্নীত করার প্রস্তাব করেছে সিএসই।

গত রোববার (১২ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) অনুষ্ঠিত এক প্রাক-বাজেট মতবিনিময় সভায় স্টক এক্সচেঞ্জটি এই প্রস্তাব করেছে। বৈঠকে সিএসইর পক্ষ থেকে ১১ দফা প্রস্তাবনা জমা দেওয়া হয়েছে।

সিএসই সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

বর্তমানে টিআইএনধারী নিবাসী বিনিয়োগকারীদের প্রাপ্য লভ্যাংশের উপর ১০ শতাংশ হারে এবং টিআইএনবিহীন নিবাসী বিনিয়োগকারীদের ক্ষেত্রে ১৫ শতাংশ হারে উৎসে কর কাটা হয়। প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের ক্ষেত্রে উৎসে কর কাটার হার ২০ শতাংশ। সিএসই এই কর প্রত্যাহারের সুপারিশ করে বলেছে, এই বিধান দ্বৈত কর সৃষ্টি করছে। কারণ তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলো প্রথমে তাদের মুনাফার উপর থেকে সরকারকে আয়কর দেয়। একই আয়ের বিপরীতে ঘোষিত লভ্যাংশের উপর উৎসে করা কাটার অর্থ হচ্ছে, একই আয়ের জন্য দু’বার কর দেওয়া।

সিএসই বাজেট প্রস্তাবনায় করমুক্ত ব্যক্তি আয়ের সীমা বাড়িয়ে ৩ লাখ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৪ লাখ টাকায় উন্নীত করার সুপারিশ হয়েছে।

পুঁজিবাজারে এসএমই খাতের কোম্পানিগুলোর তালিকাভুক্তকে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে তালিকাভুক্তির পর প্রথম ৩ বছর সম্পর্ণ কর অব্যাহতি এবং এর পর থেকে ১৫ শতাংশ হারে কর নির্ধারণের প্রস্তাব করেছে সিএসই।

Leave a Reply