ডিএসইতে গত সপ্তাহে দৈনিক গড় লেনদেন ৩৫ শতাংশ কমেছে

ডিএসইতে গত সপ্তাহে দৈনিক গড় লেনদেন ৩৫ শতাংশ কমেছে

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত সপ্তাহজুড়ে সিংহভাগ কোম্পানির শেয়ারদর অপরিবর্তিত থাকলেও সূচকের পতন দেখা গেছে। একইসঙ্গে দৈনিক গড় লেনদেন ৩৪ দশমিক ৯১ শতাংশ বেড়েছে। অন্যদিকে গত সপ্তাহে বাজার মূলধন কমেছে শূন্য দশমিক ৪২ শতাংশ। আগের সপ্তাহে পাঁচ কার্যদিবস লেনদেন হয়েছে, আর গত সপ্তাহে পাঁচ কার্যদিবস লেনদেন হয়।

সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩৭ দশমিক ১০ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৫৯ শতাংশ কমে ৬ হাজার ২৪৬ দশমিক ২১ পয়েন্টে স্থির হয়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ৫ দশমিক ২৭ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৩৮ শতাংশ কমে এক হাজার ৩৬৬ দশমিক ৬২ পয়েন্টে পৌঁছায়। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ১১ দশমিক ১৬ পয়েন্ট কমে দুই হাজার ২২৪ দশমিক ২০ পয়েন্টে স্থির হয়। মোট ৪০০টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২৭টির, কমেছে ১৫১টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৯৭টি কোম্পানির শেয়ারদর। লেনদেন হয়নি ২৫টির। দৈনিক গড় লেনদেন হয় ৪২২ কোটি ২৩ লাখ ৯৩ হাজার ৭৬৮ টাকা। আগের সপ্তাহে দৈনিক গড় লেনদেন হয় ৬৪৮ কোটি ৭৩ লাখ ৩৫ হাজার ৮৩৪ টাকা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে দৈনিক গড় লেনদেন কমেছে ৩৪ দশমিক ৯১ শতাংশ। গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট টার্নওভার বা লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ২ হাজার ১১১ কোটি ১৯ লাখ টাকা, আগের সপ্তাহে যা ছিল ৩ হাজার ২৪৩ কোটি ৬৬ লাখ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে টার্নওভার কমেছে, যা শতাংশের হিসেবে ৩৪ দশমিক ৯১ শতাংশ।

গত সপ্তাহে ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে বস্ত্র খাতের কোম্পানি আল-হাজ্ব টেক্সটাইল মিলস লিমিটেড। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারদর বেড়েছে ১৫ দশমিক ১২ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন গড় লেনদেন হয়েছে ৮ কোটি ৪৬ লাখ ৮১ হাজার ৮০০ টাকার শেয়ার। সপ্তাহ শেষে মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৪২ কোটি ৩৪ লাখ ৯ হাজার টাকা। এদিকে, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সর্বশেষ কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ারদর ২ দশমিক ৫০ শতাংশ বা ৩ টাকা ৯০ পয়সা কমে প্রতিটি সর্বশেষ ১৫২ টাকা ৩০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দরও ছিল একই। দিনজুড়ে ৪ লাখ ৩৭ হাজার ৮৮৪টি শেয়ার মোট এক হাজার ১৭৭ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর ৬ কোটি ৭৩ লাখ টাকা। দিনভর শেয়ারদর সর্বনি¤œ ১৫০ টাকা ৮০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ১৫৮ টাকায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে শেয়ারদর ৮৫ টাকা ৪০ পয়সা থেকে ১৫৮ টাকা ৬০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে। তালিকার দ্বিতীয় স্থানে থাকা বেঙ্গল উইন্ডসর থার্মোপ্লাস্টিকস লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ১৩ দশমিক ৯১ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন গড় লেনদেন হয়েছে ৫ কোটি ১৮ লাখ ৬৯ হাজার ৬০০ টাকার শেয়ার। সপ্তাহ শেষে মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ২৫ কোটি ৯৩ লাখ ৪৮ হাজার টাকা। এর পরের অবস্থানগুলোয় থাকা যথাক্রমে এডিএন টেলিকম লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ১০ দশমিক ৫৪ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন গড় লেনদেন হয়েছে ৬ কোটি ১৪ লাখ ৫৫ হাজার ২০০ টাকার শেয়ার। সপ্তাহ শেষে মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৩০ কোটি ৭২ লাখ ৭৬ হাজার টাকা। মুন্নু এগ্রো অ্যান্ড জেনারেল মেশিনারিজ লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ৯ দশমিক ৬৭ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন গড় লেনদেন হয়েছে ৪ কোটি ৬৪ লাখ ৪৫ হাজার ৪০০ টাকার শেয়ার। সপ্তাহ শেষে মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ২৩ কোটি ২২ লাখ ২৭ হাজার টাকা। বিচ হ্যাচারি লিমিটেডের ৭ দশমিক ৯৫ শতাংশ বেড়েছে। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন গড় লেনদেন হয়েছে ৫ কোটি ৮৪ লাখ ৮৭ হাজার ২০০ টাকার শেয়ার। সপ্তাহ শেষে মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ২৯ কোটি ২৪ লাখ ৩৬ হাজার টাকা।

অন্যদিকে গত সপ্তাহে লেনদেনের তালিকায় শীর্ষ অবস্থানে উঠে আসে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির মোট এক কোটি ৪ লাখ ১৩ হাজার ৬৬৮টি শেয়ার ১৪৩ কোটি ৮১ লাখ ৭৭ হাজার টাকায় লেনদেন হয়, যা মোট লেনদেনের ৬ দশমিক ৮১ শতাংশ। সপ্তাহজুড়ে শেয়ারটির দর ২ দশমিক ৫৩ শতাংশ কমেছে। লেনদেনের তালিকায় দ্বিতীয় শীর্ষ অবস্থানে উঠে আসে জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেড। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির মোট এক কোটি ৩৮ লাখ ৮৫ হাজার ১৯ শেয়ার ১৪০ কোটি ৩১ লাখ ৪ হাজার টাকায় লেনদেন হয়, যা মোট লেনদেনের ৬ দশমিক ৬৫ শতাংশ। সপ্তাহজুড়ে শেয়ারটির দর ৭ দশমিক ১৬ শতাংশ কমেছে। লেনদেনের তালিকায় তৃতীয় শীর্ষ অবস্থানে উঠে আসে শাইনপুকুর সিরামিকস লিমিটেড। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির মোট ২ কোটি ১০ লাখ ১২ হাজার ৬৪৫ শেয়ার ১০৩ কোটি ৫৭ লাখ ৩২ হাজার টাকায় লেনদেন হয়, যা মোট লেনদেনের ৪ দশমিক ৯১ শতাংশ। সপ্তাহজুড়ে শেয়ারটির দর ৯ দশমিক ৩৯ শতাংশ কমেছে।

Leave a Reply