বদলে গেল নকিয়ার সেই চিরপরিচিত লোগো

বদলে গেল নকিয়ার সেই চিরপরিচিত লোগো

একসময় মুঠোফোনের সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্র্যান্ড ছিল নকিয়া। স্থায়িত্বের কারণে আবালবৃদ্ধবনিতা সবার কাছেই ছিল তার কদর। কিন্তু স্মার্টফোনের জগতে তেমন সুবিধা করতে না পারায় একসময় হারিয়ে যায় জনপ্রিয় এই মুঠোফোন ব্র্যান্ড।

পরে এইচএমডি গ্লোবালের হাত ধরে মুঠোফোনের বাজারে আবার প্রবেশ করে নকিয়া। কি-প্যাডযুক্ত ফিচার ফোনের সঙ্গে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের হাত ধরে বাজার ধরার চেষ্টা করে তারা। কিন্তু তাতেও শিকে ছেঁড়েনি তাদের। এবার সেই ধারা থেকে বেরিয়ে নতুন কিছু করার প্রত্যয় জানাল তারা।

স্পেনের বার্সেলোনা শহরে চলমান মোবাইল কংগ্রেসে প্রায় ৬০ বছর পর নিজেদের আইকনিক লোগো বদলে ফেলোর ঘোষণা দিয়েছে নকিয়া। কারণ হিসেবে তারা বলেছে, মানুষ মনে করে, তারা এখনো মুঠোফোন বানায়।

আগে নকিয়ার লোগোয় ছিল দুটি হাতের আইকন। সেখানে পুরোপুরি নীল রঙে নকিয়া শব্দটি লেখা থাকত। সেই লোগোর পরিবর্তে এবার নতুন লোগোতে একাধিক রং ব্যবহার করা হয়েছে। নকিয়া লেখার ধরনও বদলে গেছে। হাতের পরিবর্তে নতুন লোগোতে বন্ধনের মতো আইকন ব্যবহার করেছে তারা।

আগে নীল রঙের যে লোগোটি ব্যবহার করত নকিয়া, তা আর থাকছে না। নতুন লোগোতে দেখা যাচ্ছে, পাঁচটি আলাদা আকার মিলে নকিয়া শব্দটি তৈরি হয়েছে। নকিয়ার প্রধান নির্বাহী পেক্কা লুন্ডমার্ক বলেছেন, এখন নকিয়া একটি ব্যবসায়িক প্রযুক্তি কোম্পানি, নিছক মুঠোফোন উৎপাদনকারী নয়। নতুন সেই ধারণা ছড়িয়ে দিতেই নতুন লোগোর ব্যবহার।

স্পেনের বিখ্যাত শহর বার্সেলোনায় চলছে মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসের আসর। আগামী ২ মার্চ পর্যন্ত চলবে এই প্রযুক্তি প্রদর্শনী। সেখানেই লোগো পরিবর্তনের ঘোষণা দিয়েছেন নকিয়ার সিইও পেক্কা লুন্ডমার্ক। তিনি বলেছেন, নকিয়ার দ্বিতীয় অধ্যায় শুরু হয়েছে। এখন আর শুধু মুঠোফোন তৈরি করবে না নকিয়া, তার মূল লক্ষ্য হবে, টেলিকম ও অন্যান্য ব্যবসার সরঞ্জাম সরবরাহ করা। যেখানে নকিয়ার অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী হতে চলেছে মাইক্রোসফট ও অ্যামাজনের মতো কোম্পানিগুলো।

রয়টার্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী, উত্তর আমেরিকার টেলিকম যন্ত্রপাতি বিক্রি কমলেও ভারতের বাজারে বেড়েছে। তাই ভারতের বাজার নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন নকিয়ার প্রধান নির্বাহী। এ ছাড়া উত্তর আমেরিকায় বছরের দ্বিতীয় ভাগে বিক্রির পরিমাণ বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করেছেন তিনি।

গত বছর নকিয়ার প্রবৃদ্ধি হয়েছে প্রায় ২১ শতাংশ।
প্রযুক্তিজগতে প্রতিনিয়ত পরিবর্তন ঘটছে। ভারতসহ অনেক দেশেই ফাইভ–জি প্রযুক্তির বাড়বাড়ন্ত হচ্ছে। ফলে ভারতসহ বিভিন্ন দেশেই বাড়ছে টেলিকম উপকরণের চাহিদা। নকিয়া ঠিক এখানেই নজর দিচ্ছে। এ লক্ষ্যে অনেক ছোট ছোট প্রযুক্তি কোম্পানি ইতিমধ্যে নকিয়ার সঙ্গে জোট বেঁধেছে। ফাইভ–জি নেটওয়ার্ক সরঞ্জাম বিক্রিতে এক নম্বরে উঠে আসতে মরিয়া নকিয়া।

মুঠোফোন বিক্রিতে দীর্ঘদিন শীর্ষস্থান ধরে রেখেছিল নকিয়া। সেই জায়গা থেকে ছিটকে যাওয়ার পরে কার্যত আর সেখানে ফিরতে পারেনি নকিয়া। তাই এবার এমন ব্যবসায় বিনিয়োগ করতে চাইছে তারা, যা তাদের আবারও বিশ্বের এক নম্বর জায়গায় নিয়ে যেতে পারে। সেই জায়গা দখলের কথাই উঠে এসেছে পেক্কার কথায়।

Leave a Reply