দেশে বাণিজ্য ঘাটতি দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩৩৮ কোটি ডলার

দেশে বাণিজ্য ঘাটতি দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩৩৮ কোটি ডলার

বিশ্ববাজারে জ্বালানিসহ সব ধরনের পণ্যের মূল্য বেড়েছে। আমদানির তুলনায় রপ্তানি কম হওয়ায় বড় বাণিজ্য ঘাটতিতে পড়েছে বাংলাদেশ। চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে (জুলাই-জানুয়ারি) বাণিজ্য ঘাটতি দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩৩৮ কোটি ডলার।

সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রকাশিত বৈদেশিক লেনদেনের চলতি হিসাবের ভারসাম্যের হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

তথ্য অনুযায়ী, চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের জুলাই-জানুয়ারি সময়ে ৪ হাজার ৪০৩ কোটি ডলারের বিভিন্ন ধরনের পণ্য আমদানি করেছে বাংলাদেশ। এই অঙ্ক গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৫ দশমিক ৬৬ শতাংশ কম। ২০২১-২২ অর্থবছরের এই ৭ মাসে ৪ হাজার ৬৬৭ কোটি ডলারের পণ্য আমদানি হয়েছিল।

এছাড়া আমদানির বিপরীতে এসময় রপ্তানি হয়েছে ৩ হাজার ৬৪ কোটি ডলারের পণ্য। যা এর আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ৯ দশমিক ৯৮ শতাংশ বেশি। গত বছর একই সময়ে ২ হাজার ৭৮৬ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছিলো।

এদিকে ডিসেম্বর শেষে দেশে বাণিজ্য ঘাটতি ছিলো ১ হাজার ২৩০ কোটি ডলার। সে হিসাবে এক মাসের ব্যবধানে বাণিজ্য ঘাটতি বেড়েছে ১০৮ কোটি ডলার।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, জানুয়ারি শেষে সেবা খাতে দেশের আয় হয়েছে ৫২৬ কোটি ডলার। অন্যদিকে সেবা খাতে দেশের ব্যয় ৭৫০ কোটি ডলার। এতে সেবা খাতের ঘাটতি দাঁড়িয়েছে ২২৪ কোটি ডলার। আগের অর্থবছরের একই সময়ে এই ঘাটতির পরিমাণ ছিলো ২০২ কোটি ডলার।

এছাড়া সামগ্রিক লেনদেনেও বড় ঘাটতিতে পড়েছে বাংলাদেশ। জানুয়ারি শেষে সামগ্রিক লেনদেনের (ঋণাত্মক) অঙ্ক দাঁড়িয়েছে ৭৩৮ কোটি ডলারে। আগের অর্থবছরের একই সময়ে (ঋণাত্মক) ২০৫ কোটি ডলারের ঘাটতি ছিলো।

তবে দেশে প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ বা এফডিআই বেড়েছে। আলোচ্য এই সাত মাসে এফডিআই এসেছে ৩০৬ কোটি ডলার। যা এর আগের অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ১২ দশমিক ৩১ শতাংশ বেশি। ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে ২৭৩ কোটি ডলারের বিনিয়োগ এসেছিলো।

Leave a Reply